দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণে সাময়িক সরকারি ছুটির দশম দিনে রংপুর মহানগরীতে সকাল থেকেই রাস্তায় নেমেছে মানুষের ঢল। সরকারি সকল নির্দেশনা অমান্য করে রিকশা-অটোরিকশা ভ্যানে সাইকেলে করে বেরিয়েছে রাস্তায়। এ দৃশ্য দেখে মনে হয়নি যেন সেখানে সরকারি কোনো নির্দেশনা আছে। অন্যদিকে নগরীতে রাস্তায় বের হওয়া মানুষজনকে ঘরে ফিরে যেতে ব্যাপক কার্যক্রম চলছে সকাল থেকেই।
সেনাবাহিনীর বিশেষ টিম নগরীর বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে রাস্তায় নেমে আসা মানুষজনকে সতর্ক করছেন। নির্দেশনা না মানা দোকানপাট গুলোর সাটার নামিয়ে দিয়েছেন।

করেছেন জরিমানাও। এছাড়াও নগরীর প্রত্যেকটি মোড়ে তল্লাশি চৌকি বসিয়ে রিক্সা মোটর সাইকেল সার্চ এবং দুইজন কিংবা তিনজন দেখলেই তাদেরকে নামিয়ে দিয়েছে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ। অন্যদিকে সকাল থেকেই সচেতনতামূলক মাইকিং করেছে সিটি কর্পোরেশন।

৬৬ পদাতিক ডিভিশন রংপুরের ইঞ্জিনিয়ার ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল তারিকুল আলম জানান, আমরা মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে লোকজনকে সামাজিক দূরত্বের বিষয়টি বোঝাচ্ছি এবং যে সমস্ত দোকানপাট খোলা আছে তাদেরকে বন্ধ করে দিতেছি যারা শুনছেন না তাদেরকে জরিমানা করছি।


এ সময়ে কর্নেল তারিকুল আলম সংবাদ মাধ্যমকে আরও জানান, তারা রাস্তায় ২-৩ জন যানবাহনে চলা ফেরা করতে দেখলেই দ্রুত তাদের যানবাহন থেকে নামিয়ে দিচ্ছে এবং জনগনকে এ বিষয় থেকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। তিনি জানান, দেশের এ পরিস্থিতিতে জনগন তাদের ডাকে সাড়া দিচ্ছে এবং তারা বিজ নিজ ঘরের ভিতর অবস্থান নিচ্ছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display