বর্তমান সময়ে টাকা এবং পয়সার ক্ষেত্রে যে বিষয়টি দেখা যায়, সেটা হলো মানুষ ধাতব মূদ্রা ব্যবহার বা লেনদেন একদম করতে চায় না। এবার এই ধাতব মূদ্রা নিয়ে অনেকটা বিপাকে পড়েছেন মাগুরা জেলার মহম্মদপুর উপজেলার খাইরুল ইসলাম খবির (৪৫) নামের একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। তার জমানো ঐ ধাতব মূদ্রার ওজন ছয় মণের কাছাকাছি। ঐ মুদ্রার মোট পরিমান ৬০ হাজার টাকা। গত ১০ বছর যাবৎ অনেকটা সঞ্চয়ী মনোভাব থেকে তিনি ২৫ পয়সা, ৫০ পয়সা, ১ টাকা ও ২ টাকার ধাতব মুদ্রা জমাতে শুরু করেন। এই সকল মুদ্রা আর্থিক লেনদেনে প্রচলিত কিন্তু খরিদ্দাররা নিতে চান না। প্রকৃতপক্ষে এই বিপুল পরিমাণ ধাতব মূদ্রা দিয়ে তিনি কী করবেন তা বুঝতে পারছেন না।
জানা যায়, খবিরের বাড়ি উপজেলা সদরের জাঙ্গালিয়া গ্রামে। তিনি সবজি ব্যবসায়ী। খবির জানান, তিনি ২৫ বছর ধরে উপজেলা সদর বাজারে সবজির ব্যবসা করছেন। গত ১০ বছর তিনি কয়েনগুলো অনিচ্ছা সত্ত্বেও জমিয়েছেন। হিসাব করে দেখা গেছে কয়েনের ওজন প্রায় ৬ মণ এবং এর অর্থমূল্য ৬০ হাজার টাকার বেশি। এক সময় ক্রেতারা সবজির দাম হিসেবে তাকে কয়েন দিয়েছেন, তিনিও নিয়েছেন এবং ধীরে ধীরে সেগুলো জমিয়েছেন। তখন ভাবতে পারেননি কয়েনগুলো আর চলবে না।

ব্যবসায়ী খাইরুল বলেন, অনেক দরিদ্র মানুষ ও ভিক্ষুকেরা কয়েন দিয়ে সবজি কিনেছেন। আমি মুখের উপর তাদের না বলতে পারিনি। তাদের ফিরিয়ে দিতে পারিনি। অনেক জায়গায় ঘুরেও কয়েনগুলো চালাতে পারিনি। কোনো ব্যাংকও এই বিপুল পয়সা আর নিতে চায় না। এখন খাইরুলের ছোট্ট বসত ঘরে প্লাস্টিকের বড় চারটি বালতি আর দুই বস্তা বোঝাই শুধু কয়েন আর আর কয়েন। একসময় কয়েনগুলো বাজারে রাখলেও এখন বাড়িতে এনে রেখেছেন।

আক্ষেপ করে খবির বলেন, ব্যবসার পুঁজির তিনের দুই ভাগই এখন কয়েনের মধ্যে আট’কে আছে। দুই ছেলে-মেয়ে স্ত্রীসহ চার সদস্যের পরিবার নিয়ে কষ্টে আছি। যদি এই কয়েনগুলোর বিনিময় মূল্য দিতো তাহলে আমার অনেক উপকার হতো।

মোফাজ্জেল হোসেন মোল্যা যিনি মহম্মদপুর বাজার বণিক সমিতির সভাপতি হিসেবে রয়েছেন তিনি বিষয়টি নিয়ে বলেন, খবিরের জমানো বিপুল পরিমান কয়েন নিয়ে বিপাকে পড়েছেন এই বিষয়টি আমরা জানি। লেনদেন করতে গেলে ধাতব মুদ্রার প্রতি যে অনিহা সেটা আমরা দেখে থাকি। বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে সুরাহা করার চেষ্টা করা হবে। রশিদুল ইসলাম যিনি মাগুরা সোনালী ব্যাংকের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার (এজিএম) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি বলেন, বিষয়টি তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জানাবেন।

আরো পড়ুন

পাল্টে যেতে শুরু করেছে আমার শরীর: মোনালী ঠাকুর

27 November, 2020 | Hits:368

ভারতের সংগীত জগতে একটি জনপ্রিয় নাম মোনালি ঠাকুর। তিনি তার জীবনে কিছুটা পরিবর্তন আনার জন্য চেষ্টা করছেন। তাই তিনি শুরুটা...

ফিলিস্তিন বিষয়ে হোয়াইট হাউসে নতুন ইতিহাস গড়লেন জো বাইডেন

27 November, 2020 | Hits:219

কিছুদিন আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন শেষ হলো। আর এই নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছেন জো বাইডেন। আমেরিকার প্রশ...

আলী যাকের হাসপাতালে ভর্তির পর যেরোগ শনাক্ত হলো

27 November, 2020 | Hits:218

বাংলাদেশের নাট্যজগতের বরেণ্য অভিনেতা এবং স্বাধীন বাংলা বেতারের শব্দ সেনা এবং বীর মুক্তিযো’/দ্ধা আলী যাকের করোনায় সংক্রম...

বাড়িওয়ালাদের মিলছে না কোনো ভাড়াটিয়া

27 November, 2020 | Hits:214

ইউসুফ তুহিনের পরিবার মিরপুর কালশি রোডে, তার সংসার চলে বাড়ি ভাড়া দিয়ে। করোনার শুরুতে, তিনি ভাড়া অর্ধেক করে রেখেছিলেন। ...

এবার সিঙ্গাপুরে খোঁজ মিলেছে সাকা চৌধুরীর বিপুল পরিমান অর্থের

27 November, 2020 | Hits:171

মানবতাবি’রো’/ধী অ’পরা’/ধে যুক্ত হওয়ার দায়ে মৃ’/ত্যুদ’ণ্ড কার্যকর হওয়া যু’/দ্ধ অপ’রা’/ধি সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরী...

আমার সঙ্গে এভাবে কথা বলবেন না, আমি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট: ট্রাম্প

27 November, 2020 | Hits:163

কিছুদিন আগে শেষ হলো আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এই নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার...

রাতে মেডিকেল ছাত্রীদের ঢুকে গ'র্হিত কাজ করতো স্বাধীন, টয়লেটে গোপন ক্যামেরাও বসিয়েছিল

29 November, 2020 | Hits:159

রাজশাহী জেলায় অবস্থিত শাহ মখদুম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের যিনি ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে রয়েছেন তার নাম স্বাধীন। এবার এই ...

হোয়াইট হাউজ ছেড়ে যাব, তবে সামনে অনেক কিছু দেখতে পারবেন: ট্রাম্প

27 November, 2020 | Hits:127

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ঘোষণা করেছেন যে, জো বাইডেন যদি আমেরিকা নির্বাচনে প্রকৃতই জিতে থাকে তাহলে, যে কোনও মুহুর্তেই ...

কাদের আগে টিকা দেওয়া হবে, জানালো সরকার

27 November, 2020 | Hits:121

করোনা মহামারীতে পৃথিবী আজ বিপর্যস্ত। এই সময়ে বিশ্ববাসী তাকিয়ে আছে গবেষক ও বিজ্ঞানীদের দিকে। এই সময়ে এই মহামারীর ছোবল থ...