সমগ্র বিশ্বের মানুষ এই মুহুর্তে চেয়ে আছে করোনার একটি কার্যকর প্রতিষেধকের দিকে যেটা কিছুটা হলেও মুক্তি দিতে পারবে এই মারন করোনাভাইরাসের হাত থেকে। তবে প্রচেষ্টা থেমে নেই বিশ্বের যে সকল খ্যাতিমান বিজ্ঞানীরা রয়েছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বায়োটেক প্রতিষ্ঠান মডার্না যাদের সদ্য আবিষ্কৃত ভ্যাকসিনটি রয়েছে পরীক্ষামূলক পর্যায়ে। এই প্রতিষ্ঠানটি কভিড-১৯ ভ্যাকসিনের ট্রায়াল পর্যায়েই সরবরাহের জন্য বেশ কিছু দেশের সাথে আলোচনা করেছে। তারা পরিকল্পনা করেছে যে, তাদের তৈরী ভ্যাকসিনের প্রত্যেকটি ডোজের মূল্য রাখা হবে ৩২ ডলার হতে ৩৭ ডলার। একটি বিবৃতির মাধ্যমে এমনটি জানিয়েছে মডার্না ফার্মা।
মডার্না ফার্মা ও ফাইজার পৌঁছে গেছে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির শেষ ধাপে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৩০ হাজার স্বেচ্ছাসেবকের ওপর এই ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হবে। ভ্যাকসিনটির নাম এমআরএনএ-১২৭৩। আশা করা হচ্ছে, এই ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত ফলাফল পাওয়া যাবে চলতি বছরের অক্টোবরে।

সংস্থাটি বুধবার জানিয়েছে, এরই মধ্যে ভ্যাকসিনের সরবরাহের জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় চারশ মিলিয়ন ডলারের ডিপোজিট পেয়েছে সংস্থাটি। মডার্না ফার্মার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্টিফেন বানসেল বলেছেন, যেহেতু আমরা একটি বাণিজ্যিকভিত্তিক কম্পানির সঙ্গে কাজ করছি, তাই করোনা মহামারির মুখে একটি দায়বদ্ধ মূল্যনির্ধারণের প্রয়োজনীয়তা স্বীকার করছি।

করোনা টিকা তৈরির জন্য মার্কিন প্রশাসনের কাছ থেকে প্রায় এক বিলিয়ন ডলার পেয়েছে মর্ডানা। প্রতিষ্ঠানটির ভ্যাকসিন তৈরি করা হয়েছে গবেষণাগারে কৃত্রিমভাবে তৈরি এমআরএনএ দিয়ে। এমআরএনএ হলো একটি জেনেটিক কোড, যার নির্দেশে কোষগুলো প্রোটিন তৈরি করে। এই প্রোটিন করোনা জীবাণুর প্রোটিনের মত দেখতে, করোনা জীবাণুর বিরুদ্ধে শরীরে প্রতিরোধী ক্ষমতা তৈরি করছে তারা।

মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা মর্ডানা গত মার্চ মাস থেকেই ভ্যাকসিন তৈরির কাজ শুরু করেছে। ১৬ মার্চ তারা দাবি করে যে তাদের করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কার করার কাজ শুরু হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে মোট ৪৫ জন স্বেচ্ছাসেবককে ’ভ্যাকসিন’র ডবল ডোজ দেওয়া হয়। সংস্থাটি দাবি করছে, প্রথম পর্যায়ের সেই ট্রায়াল সফল হয়েছে। এই ভ্যাকসিন দেয়ার পর স্বেচ্ছাসেবকদের করোনা প্রতিরোধের ক্ষমতা বেড়েছে।

উল্লেখ্য, মডার্নার ভ্যাকসিনটি বেশ সাফল্য দেখিয়েছে কোভিড রোগীদের ক্ষেত্রে, যেখানে তাদের সাফল্য শতভাগ না হলেও কোভিড-১৯ রোগীদের শরীরে বেশ আশাপ্রদ ফলাফল দেখিয়েছে। তাদের ভ্যাকসিনে শতকরা ৮৫ ভাগ রোগীর উন্নতি ঘটেছে এবং রোগীদের শরীরে এন্টিবডি তৈরী হয়েছে উল্লেখযোগ্য হারে, যা করোনাভাইরাসকে রুখে দিতে পেরেছে। তারা আশা করছে প্রাথমিকভাবে এই ভ্যাকসিন মানব শরীরে যেটুকু ভুমিকা রাখবে তা অনেকটাই আশাপ্রদ, তবে তাদের গবেষনা চলতেই থাকবে।

খবর ফরবেসের

আরো পড়ুন

আশিক টাওয়ারে রাতের আসর ভিন্ন মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছিল ইরফান সেলিমকে

28 October, 2020 | Hits:536

রাত বেড়ে যাওয়ার সাথে সাথে পুরাতন ঢাকার রাস্তা এবং সড়কগুলো শুরু হয় ফাঁকা হতে। এ দিকে কমতে শুরু করে ভিড়। কোলাহল কমে গিয়ে অ...

স্ত্রীর সাথে অভিমান করেই এমনটি করেছিলেন ইরফান সেলিম

28 October, 2020 | Hits:450

রাজধানীর চকবাজার এলাকার সাংসদ হাজী সেলিমের রাজপ্রাসাদসম ভবন ’চান সরদার দাদা বাড়ি’ হতে গ্রে’/প্তার হয়েছিলেন হাজী সেলিমের ...

নিলামে উঠছে মোংলা বন্দরে পড়ে থাকা বিপুল সংখ্যক বিলাসবহুল গাড়ি, সুযোগ হচ্ছে কেনার

28 October, 2020 | Hits:356

করোনা পরিস্থিতির কারনে খালাস করে না নেওয়ায় এবার নিলামে উঠতে চলেছে মোংলা বন্দরে পড়ে থাকা ৯২টির মতো রিকন্ডিশন এবং বিলাসবহু...

গ্রে'ফতারের পর কোয়ারেন্টিনে থাকতে হচ্ছে হাজী সেলিমপুত্রকে

27 October, 2020 | Hits:341

নৌবাহি’নীর একজন কর্মকর্তার সাথে আশোভন আচারন এবং মা’রধ’রের ঘটনায় গ্রে’ফতার হয়েছেন সাংসদ হাজী সেলিমের ছেলে এবং ওয়ার্ড কাউন...

এবার সৌদিতে নারীদের বিদেশি স্বামীর ক্ষেত্রে শর্ত শিথিল করে হলো নতুন এক আইন

28 October, 2020 | Hits:338

সৌদি আরবের যে সকল নারী অন্য কোনো দেশের কোনো পুরুষকে বিয়ে করেছেন বা স্বামী গ্রহণ করার মাধ্যমে সন্তান জন্ম দিয়েছেন। পূর্বে...

এবার ইরফান সেলিম সম্পর্কে ভিন্ন এক তথ্য দিল র‍্যাব

27 October, 2020 | Hits:272

গত রবিবার রাতে ঢাকা-৭ সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে কাউন্সিলর ইরফান সেলিম ও তার সহযোগীরা নেভি অফিসার লেঃ মোঃ ওয়...

৭০ সদস্যে বিশিষ্ট শক্তিশালী আর্মড গ্যাং পরিচালনায়ও ছিল অভিনবত্ব ইরফান সেলিমের

28 October, 2020 | Hits:181

নৌবাহি/’নীর একজন কর্মকর্তাকে লা’/ঞ্চনা এবং মা’/রধরের ঘটনায় গ্রে’/প্তার হয়েছেন সাংসদ হাজী সেলিমের পূত্র কাউন্সিলর ইরফান স...

ঢাবিতে ৪ বছর একসাথে পার করলেও রুম্পার চেহারা কোনোদিন দেখেনি সহপাঠীরা

28 October, 2020 | Hits:173

পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলায় ইচ্ছার বিরুদ্ধে পুরোপুরি জোর করে পছন্দ না হওয়া এক ছেলে সাথে বিয়ে দেবার প্রস্তুতি নেবার সময়ে ...

সাংসদের স্টিকার সাটানো গাড়িটি নিয়ে এবার যে অ'বৈধ বিষয় সামনে এলো

28 October, 2020 | Hits:146

সাম্প্রতিক সময়ে আলো’চনায় উঠে আসা এমপি হাজী সেলিমের পূত্র ইরফান রাজধানীর ধানমন্ডিতে নৌবাহি’/নীর একজন সদস্যকে লা’/ঞ্ছিত কর...

প্রতি ডোজ করোনা ভ্যাকসিনের দাম কত পড়বে জানালো মডার্না
Logo
Print

আন্তজার্তিক Hits: 206

 

সমগ্র বিশ্বের মানুষ এই মুহুর্তে চেয়ে আছে করোনার একটি কার্যকর প্রতিষেধকের দিকে যেটা কিছুটা হলেও মুক্তি দিতে পারবে এই মারন করোনাভাইরাসের হাত থেকে। তবে প্রচেষ্টা থেমে নেই বিশ্বের যে সকল খ্যাতিমান বিজ্ঞানীরা রয়েছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বায়োটেক প্রতিষ্ঠান মডার্না যাদের সদ্য আবিষ্কৃত ভ্যাকসিনটি রয়েছে পরীক্ষামূলক পর্যায়ে। এই প্রতিষ্ঠানটি কভিড-১৯ ভ্যাকসিনের ট্রায়াল পর্যায়েই সরবরাহের জন্য বেশ কিছু দেশের সাথে আলোচনা করেছে। তারা পরিকল্পনা করেছে যে, তাদের তৈরী ভ্যাকসিনের প্রত্যেকটি ডোজের মূল্য রাখা হবে ৩২ ডলার হতে ৩৭ ডলার। একটি বিবৃতির মাধ্যমে এমনটি জানিয়েছে মডার্না ফার্মা।
মডার্না ফার্মা ও ফাইজার পৌঁছে গেছে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির শেষ ধাপে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৩০ হাজার স্বেচ্ছাসেবকের ওপর এই ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হবে। ভ্যাকসিনটির নাম এমআরএনএ-১২৭৩। আশা করা হচ্ছে, এই ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত ফলাফল পাওয়া যাবে চলতি বছরের অক্টোবরে।

সংস্থাটি বুধবার জানিয়েছে, এরই মধ্যে ভ্যাকসিনের সরবরাহের জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় চারশ মিলিয়ন ডলারের ডিপোজিট পেয়েছে সংস্থাটি। মডার্না ফার্মার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্টিফেন বানসেল বলেছেন, যেহেতু আমরা একটি বাণিজ্যিকভিত্তিক কম্পানির সঙ্গে কাজ করছি, তাই করোনা মহামারির মুখে একটি দায়বদ্ধ মূল্যনির্ধারণের প্রয়োজনীয়তা স্বীকার করছি।

করোনা টিকা তৈরির জন্য মার্কিন প্রশাসনের কাছ থেকে প্রায় এক বিলিয়ন ডলার পেয়েছে মর্ডানা। প্রতিষ্ঠানটির ভ্যাকসিন তৈরি করা হয়েছে গবেষণাগারে কৃত্রিমভাবে তৈরি এমআরএনএ দিয়ে। এমআরএনএ হলো একটি জেনেটিক কোড, যার নির্দেশে কোষগুলো প্রোটিন তৈরি করে। এই প্রোটিন করোনা জীবাণুর প্রোটিনের মত দেখতে, করোনা জীবাণুর বিরুদ্ধে শরীরে প্রতিরোধী ক্ষমতা তৈরি করছে তারা।

মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা মর্ডানা গত মার্চ মাস থেকেই ভ্যাকসিন তৈরির কাজ শুরু করেছে। ১৬ মার্চ তারা দাবি করে যে তাদের করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কার করার কাজ শুরু হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে মোট ৪৫ জন স্বেচ্ছাসেবককে ’ভ্যাকসিন’র ডবল ডোজ দেওয়া হয়। সংস্থাটি দাবি করছে, প্রথম পর্যায়ের সেই ট্রায়াল সফল হয়েছে। এই ভ্যাকসিন দেয়ার পর স্বেচ্ছাসেবকদের করোনা প্রতিরোধের ক্ষমতা বেড়েছে।

উল্লেখ্য, মডার্নার ভ্যাকসিনটি বেশ সাফল্য দেখিয়েছে কোভিড রোগীদের ক্ষেত্রে, যেখানে তাদের সাফল্য শতভাগ না হলেও কোভিড-১৯ রোগীদের শরীরে বেশ আশাপ্রদ ফলাফল দেখিয়েছে। তাদের ভ্যাকসিনে শতকরা ৮৫ ভাগ রোগীর উন্নতি ঘটেছে এবং রোগীদের শরীরে এন্টিবডি তৈরী হয়েছে উল্লেখযোগ্য হারে, যা করোনাভাইরাসকে রুখে দিতে পেরেছে। তারা আশা করছে প্রাথমিকভাবে এই ভ্যাকসিন মানব শরীরে যেটুকু ভুমিকা রাখবে তা অনেকটাই আশাপ্রদ, তবে তাদের গবেষনা চলতেই থাকবে।

খবর ফরবেসের
Template Design © Joomla Templates | GavickPro. All rights reserved.