বর্তমান সময়ে দেশ জুড়ে চলছে প্রাননাশকারী ’কোভিড১৯’ ভাইরাসের তান্ডব। এই ভাইরাসের কবলে পড়ে মানুষ নানা সংকটের মুখে পড়েছে। তবে তুলনা মূলক ভাবে বেশি ক্ষতির কবলে পড়েছে সমাজের খেটে খাওয়া মানুষ গুলো। সরাকর এই সকল মানুষদের জন্য নানা পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। তবে এই সকল পদক্ষেপ সঠিক ভাবে কার্যকর হচ্ছে না।দেশের এই ক্রান্তিলগ্নেও সমাজের কিছু অসৎ মানুষ এই সকল কাজে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। দেশের এই সকল কর্মকান্ড নিয়ে নানা কথা বলেছেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট ড. কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রেসিডেন্ট ও জাতীয় মুক্তিমঞ্চের আহ্বায়ক ড. কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম বলেছেন, ক্ষমতার লোভ এবং অহংকার পৃথিবীকে গ্রাস করেছে। ক্ষমতায় বসলে সবকিছু জায়েজ মনে হয়। অন্যকে মানুষ মনে হয় না। মানুষকে মর্যাদা দিতে চায় না। করোনার মতো মহামারীর পরেও থেমে নেই ক্ষমতাসীনদের চাল চুরি, রিলিফের মাল চুরি, টাকা চুরির ঘটনা। প্রতিদিন পত্রিকার কাগজে শিরোনাম হচ্ছে এই চুরির খবর। অথচ কোথাও কোন বিচার নেই। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

কর্নেল অলি বলেন, এ মুহূর্তে লকডাউন আরো কঠোর করার প্রয়োজন ছিলো। গত ২-৩ দিন যেভাবে লকডাউন অমান্য করা হয়েছে তাতে বড় ধরণের ক্ষতির সম্মুখিন হতে হবে। তিনি বলেন, ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের ব্যাপারে সরকারকে আরো কঠোর এবং যত্নশীল হতে হবে। মনে রাখতে হবে, কোন অবস্থাতেই যেন অসহায় হতদরিদ্র এবং নিম্নমধ্যবিত্ত আয়ের লোকেরা বাদ না পড়ে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে প্রতিদিনই জ্যামিতিক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। এই ভাইরাসকে ঘিরে বাংলাদেশের মানুষের মাঝে নানা ভীতি কাজ করছে। এই ভাইরাসের কোন প্রতিষেধক বা ঔষধ না থাকায় ভাইরাসটি নির্মূল করা সম্ভব হচ্ছে না। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের মানুষ নানা ভাবে সচেতনতার মধ্যে দিয়ে এই ভাইরাস মোকাবিলার জন্য আপ্রান ভাবে চেষ্টা করছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display