বাবার পাশে বসে ফ্লাইট চালানোর সেই মুহূর্তের অনুভূতি জানিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফার্স্ট অফিসার এরিক বলেন, মুহূর্তটি ছিল সত্যিই রোমাঞ্চকর। আমি মনে মনে গর্ববোধ করছিলাম। সে সময়ের পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছিল আমার বাবাও ককপিটে সন্তানকে একসঙ্গে পেয়ে গর্বিত ছেলেন।
বাবা ও ছেলে একসঙ্গে ককপিটে দায়িত্ব পালন করেছেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট। ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১২টায় ব্যাংককগামী বিজি-০৮৮ ফ্লাইটে।

ফ্লাইটটিতে ছিলেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৩৭ এর ফার্স্ট অফিসার এরিক রেজা খোন্দকার এবং রিজেন্ট এয়ারওয়েজ থেকে স্বল্পমেয়াদি চুক্তিতে বিমানে যোগদান করা সিনিয়র পাইলট খোন্দকার নাজমুল ইসলাম। বাবা ক্যাপ্টেন নাজমুলের ডানপাশে বসলেন ছেলে ফার্স্ট অফিসার এরিক। রোমাঞ্চকর ছিল সেই মুহূর্ত।


এরিক বলেন, আমরা বাবা ছেলে একসঙ্গে ফ্লাইট পরিচালনা করলেও দুজনই ছিলাম পেশাদার পাইলটের ভূমিকায়। পরে আমরা বিষয়টি নিয়ে অনেকের মুখ থেকে প্রশংসা শুনেছি। তখন খুব ভালো লেগেছে।

উল্লেখ্য, বিমানে যোগদান করা সিনিয়র পাইলট খোন্দকার নাজমুল ইসলাম রিজেন্ট এয়ারওয়েজ থেকে স্বল্পমেয়াদে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে যোগ দিয়েছেন। মেয়াদ শেষে তিনি আবার রিজেন্ট এয়ারওয়েজে ফিরে যাবেন।

অপরদিকে ফার্স্ট অফিসার এরিক রেজা খোন্দকার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে স্থায়ী পাইলট হিসেবে চাকরি করছেন।