বাপ্পি লাহিড়ী নামটি শুনলে মনে পড়ে যায় ভিন্ন ধারার কন্ঠের এক সুরেলা কন্ঠের অধিকারী গায়কের কথা। তিনি এই পর্যন্ত তার ভক্তদের জন্য অনেক অনেক গান উপহার দিয়েছেন। তিনি দুই বাংলার একজন নণ্দিত কন্ঠ শিল্পী। তাছাড়া তিনি হিন্দি ভাষার আওনেক গান গেয়েছেন। উপমহাদেশের এই কিংবদন্তি গা্য়ক শুধু গানই উপহার দিতেন না, তিনি ছিলেন সুরকার ও সংগীত পরিচালকও। তিনি অনেক সং্গীত পরিচালনা করেছেন যাতে তার কোনো জুড়ি নেই। তার সুরে গান করেছেন অনেক খ্যাতিমান তারকা শিল্পী।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display

মিঠুনের দুর্দান্ত নাচের সঙ্গে ’আই এম এ ডিস্কো ড্যান্সার’, সঞ্জয়-মাধুরী জুটির ’তাম্মা তাম্মা’, আরতি মুখার্জির কণ্ঠে ’তখন তোমার একুশ বছর’, হালের বলিউডে ’দ্য ডার্টি পিকচার’ ছবির ’উ লাল লা’ কিংবা বাংলাদেশি সিনেমায় ’একটাই কথা আছে বাংলাতে’ গানগুলো চিরদিনের মতো সজীব। এসব গানের সঙ্গে জড়িয়ে আছে ।

বাংলা, হিন্দি, উর্দু, তামিল, তেলেগু, পাঞ্জাবী, আসামি, বিহারী, ইংরেজিসহ নানা ভাষায় হাজার হাজার গান করেছেন তিনি। সর্বজন শ্রদ্ধেয় এই মিউজিক সুপারস্টার বর্তমানে অসুস্থ বলে খবর পাওয়া গেছে।ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, গলার স্বর হারিয়েছেন বাপ্পি লাহিড়ী। আর কোনোদিন তিনি গাইতে পারবেন কি না সে নিয়েও দেখা দিয়েছে সংশয়!

গেল এপ্রিল মাসে শিল্পী ক’রোনা সংক্রমিত হওয়ার পর থেকেই তার শারীরির অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। কথা বলাও বন্ধ হয়ে যায় বাপ্পি লাহিড়ীর। তারপর থেকেই গোটা বলিউডে রটে যায়, বাপ্পি লাহিড়ী তার কণ্ঠ হারিয়েছেন। গত ৫ মাস ধরে নাকি একেবারেই কথা বলছেন না তিনি! বাপ্পি লাহিড়ীর পুত্র বাপ্পা লাহিড়ী বাবা ক’রোনা সংক্রমিত হওয়ার পরই সুদূর আমেরিকা থেকে মুম্বাইয়ে চলে আসেন। এখনও তিনি মুম্বাইয়েই আছেন।

সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমকে বাবার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি জানান, ’বাবা খুবই দুর্বল। ধীরে ধীরে শরীর ঠিক হচ্ছে। তবে ফুসফুসে সংক্র’মণ হওয়ায় একেবারে সুস্থ হতে দেরি হচ্ছে। তবে যেটা রটেছে, সেটা মোটেই ঠিক নয়। বাবা কথা বলছেন না কারণ এই কথা না বলাটা চিকিৎসার অংশ।

উল্লেখ্য, অলোকেশ বাপ্পি লাহিড়ী একজন ভারতীয় গায়ক, সুরকার, রাজনীতিবিদ এবং রেকর্ডিং প্রযোজক। তিনি ভারতীয় সিনেমায় সিনথেসাইজড ডিস্কো মিউজিকের ব্যবহারকে জনপ্রিয় করে তোলেন এবং তার নিজের কিছু কম্পোজিশন গান করেন। তিনি প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জির জন্য কিছু গান রচনা করেছেন। তিনি এবং প্রসেনজিৎ অমর সঙ্গী, আশা ভালোবাসা, অম’র তুমি, অম’র প্রেম, মন্দিরা, বদনাম, র’/ক্তলেখা, প্রিয়া প্রভৃতি বক্স অফিসে সাফল্য এনেছিলেন। লাহিড়ী ২০১৪ সালে বিজেপিতে যোগ দেন। ঐ বছরেই তিনি ভারতীয় সাধারণ নির্বাচনের জন্য পশ্চিমবঙ্গের শ্রীরামপুর থেকে তাঁকে বিজেপির প্রার্থী ঘোষণা করা হয় এবং তিনি হেরে যান।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display