বর্তমান বিশ্ব করোনা ভাইরাসের প্রকোপে বিধ্বস্থ। তবে এই ভাইরাসটি একাক সময় একাক দেশে মারাত্মক আকার ধারন করছে। সম্প্রতি সময়ে ভারতে ভাইরাসটি ভয়াবহ রুপ ধারন করেছে। এমনকি প্রতি মূহুর্তেই বেড়ে চলছে আক্রান্ত এবং মৃ"ত্যুবরনের সংখ্যা। এই করোনা তীব্র আকারের কারনে ভারতে অক্সিজেনের সংকট দেখা দিয়েছে। এই সংকটের মধ্যেও নতুন আরেকটি সংকটের কথা জানালেন ডা. দেবী শেঠি।
প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের তাণ্ডব চলছেই ভারতজুড়ে। এই ভাইরাসের ছোবলে গত ২৪ ঘণ্টায় (মঙ্গলবার) দেশটিতে আরও ৩ হাজার ৭৮৬ জনের মৃ"ত্যু হয়েছে, যা মহামারী চলাকালে একদিনে মৃ"ত্যুর সর্বোচ্চ রেকর্ড। এ নিয়ে দেশটিতে মোট প্রা/ণ/হা/নি ছাড়াল দু’লাখ ২৬ হাজার। এর মধ্যে আরও আশঙ্কার কথা জানালেন বিশ্বখ্যাত কার্ডিয়াক সার্জন ডা. দেবী শেঠি। তিনি বলেন, বর্তমানে সারা ভারতে কোভিড রোগীরা অক্সিজেন সঙ্কটের মুখোমুখি হয়েছে। কিন্তু আগামী দিনে এর থেকেও বড় সমস্যা আসতে চলেছে। জীবনদায়ী গ্যাসের ঘাটতির পর এবার চিকিৎসকদের ঘাটতিও আসতে চলেছে।

সম্প্রতি সিমবায়োসিস ইন্টারন্যাশনাল আয়োজিত একটি ভার্চুয়াল সম্মেলনে এমনই আশঙ্কার কথা জানান। ডা. শেঠি আরও বলেন, একবার অক্সিজেন সমস্যা সমাধান হয়ে গেলে পরের কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পরবর্তী সমস্যাটি আইসিইউতে রোগীদের মৃ"ত্যুর কারণ হবে। কারণ তাদের যত্ন নেওয়ার জন্য কোনও নার্স এবং চিকিৎসক নেই। এমনটাই ঘটতে যাচ্ছে। এ নিয়ে আমার কোনও সন্দেহ নেই।
প্রখ্যাত এই হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ বলেন, মে মাস থেকেই সমস্যা বাড়তে থাকবে। প্রত্যেক ডাক্তার কিংবা নার্সদের কোভিড আইসিইউতে চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা কাজ করতে অসুবিধা হয়। কোভিডের প্রথম পর্যায় থেকে চিকিৎসকরা কাজ করছেন, তারা মানসিকভাবে ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন, অনেকেই সংক্রমিত হয়েছেন এই রোগে।

তার মতে, ভারতে মহামারীর এই সঙ্কটে অবিলম্বে দেশে ২ লক্ষ নার্স নিয়োগ করা উচিত। আমাদের ২ লক্ষ নার্স এবং দেড় লক্ষ ডাক্তার তৈরি করতে হবে যা পরবর্তী এক বছরের জন্য কোভিড পরিচালনা করবেন। সারাদেশে বিভিন্ন নার্সিং স্কুল ও কলেজগুলোতে প্রায় ২.২০ লক্ষ নার্স তিন বছরের জিএনএম বা চার বছরের বিএসসি কোর্সের প্রশিক্ষণ শেষ করেছেন তবে তাদের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। এই প্রশিক্ষিত নার্সদের এক বছরের জন্য কোভিড আইসিইউতে কাজ করার সুযোগ দেওয়া উচিত, এরপর তারা তাদের ডিগ্রির সনদ পেতে পারে।

প্রায় ১ বছরের বেশি সময় ধরে ভারতে বিরাজ করছে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ। এই ভাইরাসটি ভারতে দেখা দেওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত দেশটিতে মোট সংক্রমিত হয়েছে ২ কোটি ১০ লাখ ৭৭ হাজার ৪১০ জন। এবং মৃ"ত্যুবরন করেছে ২ লাখ ৩০ হাজার ১৬৮ জন। এছাড়াও এই ভাইরাসটির সঙ্গে লড়াই করে সুস্থতা লাভ করতে সক্ষম হয়েছে ১ কোটি ৭২ লাখ ৮০ হাজার ৮৪৪ জন।

আরো পড়ুন

বিল গেটসের কৃষিজমির মোট পরিমাণ কত, উঠে এলো প্রকাশ্যে

15 June, 2021 | Hits:201

গোটা পৃথিবীর মধ্যে ধনী ব্যক্তিদের ভিতরে অন্যতম একজন বিল গেটস। সমগ্র বিশ্ব জুড়ে তার ব্যপক পরিচিতি এবং জনপ্রিয়তা রয়েছে। এম...

অবশেষে জামিন পেলেন নিপুণ রায় চৌধুরী

16 June, 2021 | Hits:34

নিপুণ রায় চৌধুরী বাংলাদেশের এক সুপরিচিত এবং চেনা মুখ। তিনি মূলত একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তিনি বাংলাদেশের জাতীয়তাবাদী রা...