লুকানো ধন বা গুপ্তধনের সন্ধান পাওয়া মানে যেটা আমরা বুঝি সেটা হলো কারো ভাগ্য ফিরে যাওয়া বা অঢেন সম্পদের মালিক হওয়া। তাই অনেকে ছুটে বেড়ান গুপ্তধনের সন্ধানে, যদি মিলে যায় তাহলে সারা জীবনের একটি আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত। বিভিন্ন দেশে গুপ্তধনের সন্ধান মিলেছে এমন ঘটনা মাঝে মাঝে সংবাদ মাধ্যমে দেখা গিয়ে থাকে, এই ধরনের ঘটনার সংখ্যা কম নয়। এবার লু’কিয়ে রাখা ধন পাওয়া গেল বাংলাদেশের গাজীপুরে। জয়দেবপুর উপজেলার একটি বাড়ির আঙ্গিনা থেকে ১০০ বছরের পুরনো গুপ্তধন উ’দ্ধার করা হয়েছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সদর উপজেলার দিগধা গ্রামে দিগেন মল্লিকের বাড়ির উঠোনে খনন করার সময় শ্রমিকরা গুপ্তধন উ’দ্ধার করে। সে সময় সেখান থেকে ৩০ ভরি ওজনের ৩০ টি রৌপ্য মুদ্রা পাওয়া যায়।

জানা যায়, দুপুরে দিগেন মল্লিকের বাড়ির উঠানের মাটি কাটার সময় শ্রমিক উদ্রিসের কোদালে আ’/ঘা’ত লাগে। পরে দুটি ধাতব পাত্র থেকে একে একে বেরিয়ে আসে ৩০টি শতবর্ষী রুপার মুদ্রা।

বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে পু’/লি’/শকে খবর দেন স্থানীয়রা। জয়দেবপুর থা’/না’র বাড়িয়ার আমতলী ফাঁ’/ড়ির এসআই আশরাফ ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩০টি রুপার মুদ্রা উদ্ধার করে থা’/নায় নিয়ে যান।

ভারতীয় রুপিগুলিতে ১৯০৭, ১৯১২, ১৯১৪ ও ১৯১৬ সাল মুদ্রিত রয়েছে এবং সেগুলির বেশিরভাগ রুপোর মুদ্রা। সুতরাং এই লেখা দেখে অনেকটা নিশ্চিত করা হয়েছে যে কয়েনগুলি ১০০ বছরের পুরানো।

এসআই আশরাফ যিনি বাড়িয়ার আমতলী পু’/লি’/শ ফাঁ’ড়ির প্রধান হিসেবে রয়েছেন তিনি বলেন, গাজীপুর আ’দা’লতের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট বিভাগে ১০০ বছরের পুরাতন ঐ সকল রৌপ্য মুদ্রা জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া চলমান আছে।

আরো পড়ুন

Error: No articles to display